কালোজিরা যে সকল রোগের মহৌষধ তা এখুনি জেনে নিন

Share
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on skype
Share on email
কালোজিরা যে সকল রোগের মহৌষধ তা এখুনি জেনে নিন

কালোজিরা সম্পর্কে মূল্যবান কিছু প্রাথমিক তথ্য

কালোজিরা মহান রাব্বুল আলামিন প্রদত্ত মানুষের জন্য এক বিশেষ নেয়ামত। কালোজিরার অনেক গুন রয়েছে, যেগুলা মানুষের রোগ-প্রতিরোধে সাহায্য করে। আমাদের বিশ্বনবী হজরত মুহাম্মদ(সঃ) বলেছেন তোমরা কালোজিরা ব্যাবহার করবে কেননা কালোজিরা মৃত্যু ব্যাতীত সকল রোগের মুক্তি এতে রয়েছে।

নিয়মিত কালোজিরা খেলে লিভার ও কিডনি সমস্যা থাকে না।

আমরা আমাদের লিভার ও কিডনি সুস্ত রাখতে নিয়মিত কালোজিরা খেতে পারি। কালোজিরা আমাদের জন্য একটি বড়ো নিয়ামত। যা আমরা অনেকেই কখনও উপলব্ধি করি নাই।

আসুন জেনে নেই কালোজিরা খেলে আমাদের কোন রোগ গুলো নিয়ন্ত্রণে আসে নিয়মিত কালোজিরা খেলে ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, একজিমা, এলার্জি ইত্যাদি নিয়ন্ত্রণে আসে।

কালোজিরায় ভিটামিন স্ফটিকাল নাইজেলন,প্রোটিন,আ্যামিনো এসিড পটাশিয়াম, সোডিয়াম ও কালসিয়াম রয়েছে।

কালোজিরার উপকারিতাঃ

বর্তমানে ডায়াবেটিস সবথেকে বিপদজনক রোগে পরিনত হয়েছে।ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ করতে কালোজিরার তেল খুবই উপকারী। সকালে এক কাপ চায়ের সাথে হাফ চাপস কালোজিরার তেল মিশিয়ে সেবন করলে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে চলে আসে।

ডায়েটের জন্য রুটি ও তরকারিতে কালোজিরা সহযোগে রান্না করে খেলে উপকার পাওয়া যায়। অনেকে মধুর সাথে কালোজিরা মিশিয়ে ও খেয়ে থাকেন।টক ূইয়ের সাথে কালোজিরা মিশিয়ে সেবন করলে বেশ উপকার পাওয়া যায়।
কালোজিরা ও লেবুর রস একসাথে মিশিয়ে ব্যাবহার করলে ত্বকের বেশ উপকার পাওয়া যায়।ত্বকে  ব্রনের দাগ দূর করতে এই পদ্ধতি বেশ কার্য়করী।

মাথা ব্যাথা থেকে রক্ষা পেতে কালোজিরার তেল ব্যাবহার করুন। কালোজিরার তেল মাথার তালুতে ম্যাসেজ করলে মাথা ব্যাথা অনেকাংশে কমে যায়। এ পদ্ধতি বহু আাগে থেকেই ব্যাবহার হয়ে আসছে।

জয়েন্টের ব্যাথা দূর করার ক্ষেএে কালোজিরার তেল মহৌষধ হিসাবে কাজ করে।কালোজিরার তেল সরিষার তেলের সাথে মিক্সড করে জয়েন্টে লাগালে নিমিষেই ব্যাথা দূর হয়ে যায়।

কালোজিরার ক্ষতিকর দিকঃ

কালোজিরা আমাদের শরীরের কোন ক্ষতি করে না বরং এটি আমাদের মৃত্যু ব্যাতিত সকল রোগের মহৌষধ হিসাবে ব্যাবহার করা হয়। কিন্ত বর্তমানে আমাদের পৃথিবীতে কিছু জঙ্গী আছে যারা সকল সময় অনৈতিক কজে যুক্ত থাকে।দেশের সেনাবাহিনি যখন তাদের ফোন কল  হ্যাক  করেন সে সময় তারা এই কালোজিরার ব্যাবসার নাম করে একজন অন্যজনের সাথে যোগাযোগ করে ও দেশে দাম্গামা সৃয্টি করে।

কালোজিরার গুনাগুণঃ

আমাদের বিশ্বনবী হজরত মুহাম্মদ(সঃ) বলেছেন তোমরা কালোজিরা ব্যাবহার করবে কেননা কালোজিরা মৃত্যু ব্যাতীত সকল রোগের মুক্তি এতে রয়েছে।

নিয়মিত কালোজিরা খেলে লিভার ও কিডনি সমস্যা থাকে না।
আমরা আমাদের লিভার ও কিডনি সুস্ত রাখতে নিয়মিত কালোজিরা খেতে পারি। কালোজিরা আমাদের জন্য একটি বড়ো নিয়ামত।

কালোজিরা খাওয়ার উপকারিতাঃ

  • স্বরণশক্তি বৃদ্ধি পায়
  • মাতাব্যাথা নিরাময় হয়
  • বাতের ব্যাথা দূর হয়
  • সর্দি জ্বর নিরাময় হয়
  • হাটের সমস্যা নিরাময় হয়
  • মহিলাদের বুকের দুধ বৃদ্ধি পায়
  • ব্লাড প্রেশার নিয়ন্ত্রণে থাকে
  • পাইলস এর সমস্যা নিরাময় হয়
  • হাপানি বা শ্বাসকষ্ট নিরাময় হয়
  • আমাশয় নিরাময় হয়
  • শিশুর দৈহিক ও মানসিক বৃদ্ধিতে সহায়তা করে
  • পরিশেষে বলা যায় কালোজিরা মানবদেহের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান।
  • শক্তি বর্ধক ও মৃত্যু ব্যাতীত সকল ক্ষেএে এর গুরুত্ব অপরিসীম।

বি:দ্র‍: পোস্ট টি কেমন হলো কমেন্ট করে জানাবেন।

Advertisement

Share
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on skype
Share on email

Readers comments

Sponsored

Official Facebook page

Sponsored