জলে ডুবে গেলে কি করনীয়

Share
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on skype
Share on email
জলে ডুবে গেলে কি করনীয়

আমাদের দেশে জলে ডুবে মৃত্যুর ঘটনা প্রায়ই দেখা যায় কিংবা শোনা যায় এবং এই দুর্ঘটনা থেকে বাঁচতে আমাদেরকে জলে ডুবে গেলে কি করনীয় সেটা সম্পর্কে সঠিক জানতে হবে। তাহলেই জলে ডোবা রোগীকে বাঁচানো সম্ভব হবে।

জলে ডুবে গেলে কি করনীয়

  1. জলে ডুবে গেলে প্রথমে তাকে জল থেকে ডাঙ্গায় তুলে নিয়ে আসতে হবে  এবং মাটিতে সমান জায়গা দেখে আস্তে আস্তে শুইয়ে দিতে হবে এবং খেয়াল রাখতে হবে যেন তার পা হালকা উপরের দিকে ও মাথা কিছুটা নিচের দিকে থাকে। তারপর তার শ্বাস প্রশ্বাস চলছে কিনা সেটা লক্ষ্য করতে হবে।

  2. যদি শ্বাস-প্রশ্বাস না চলে তাহলে জলে  ডুবে যাওয়া রোগীকে মাটি থেকে মাথার উপরে তুলে তার পেটটা মাথার উপরে রেখে চাপ দিয়ে জোরে জোরে ঘোরাতে হবে তাহলে তার পেটে এবং ফুসফুসে জমে থাকা জল বেরিয়ে আসবে।

  3. যদি এতেও জল না বের হয় এবং শ্বাস প্রশ্বাস প্রক্রিয়া চালু না হয় তা হলে রোগীকে উপুর করে মাটিতে শুইয়ে  তার পিঠের উপরে উঠে জোরে জোরে চাপ দিতে হবে যাতে রোগীর পেটে ও বুকে  জমে থাকা সমস্ত জল বেরিয়ে আসে এবং শ্বাস প্রশ্বাস প্রক্রিয়া চালু হয়ে যায়। 

  4. যদি এতেও রোগীর শ্বাস-প্রশ্বাস চালু না হয় তাহলে রোগীর বুকের বাম পাশে দুই হাত রেখে জোরে জোরে চাপ দিতে হবে এবং রোগীর মুখে মুখ লাগিয়ে জোরে ফু দিতে হবে এভাবে করতে থাকলে রোগীর শ্বাস-প্রশ্বাস চালু হয়ে যেতে পারে।

  5. জলে ডুবে যাওয়া ব্যক্তির জ্ঞান ফেরার পরে রোগীকে গরম দুধ কিংবা চা পান করালে ভালো হয়।

কি করবেন না

  1. বিপদের মাথায় তাড়াহুড়ো করে সাঁতারে অপারদর্শী কোনো ব্যক্তি ডুবন্ত ব্যক্তিকে উদ্ধার করতে যাবেন না। এতে করে দুজনেরই জীবন সংশয় ঘটতে পারে।

  2. রোগীর ফুসফুস ও শ্বাসনালী থেকে জল বের করার সময় খুব বেশি সময় নেবেন না এতে রোগীর জীবন সংশয় ঘটতে পারে।

  3. প্রাথমিক বিপদ কাটিয়ে ওঠার পর রোগীকে অবশ্যই হাসপাতালে নিতে হবে। ঘরে বসিয়ে রাখবেন না তাহলে পরবর্তীতে ক্ষতি হতে পারে।

জলে ডুবে মৃত্যুর কারণ

জলে ডুবে যাওয়া ব্যক্তির মৃত্যুর কারণ হলো শ্বাস-প্রশ্বাস ক্রিয়া বন্ধ হয়ে যাওয়া। জল শ্বাসনালী ও ফুসফুসে ঢুকে যাওয়ার কারণেই এমনটি হয়। দুই থেকে তিন মিনিট শ্বাস বন্ধ হয়ে থাকলে মস্তিষ্কের অপূরণীয় ক্ষতি হয়। আর তার থেকে যদি 6 মিনিট সার্চ বন্ধ হয়ে থাকে তাহলে মৃত্যু ঘটে। শ্বাস-প্রশ্বাস ক্রিয়া বন্ধ হওয়া ছাড়াও প্রচুর জল খাওয়ার কারণে রোগীর পেট ফুলে যায়।

বিঃদ্রঃ উপরিউক্ত সকল বিষয়গুলো অনুসরণ করলে একজন জলে ডোবা ব্যক্তিকে বাঁচিয়ে তোলা সম্ভব এবং একজন জলে ডুবে যাওয়া ব্যক্তির জীবন বাঁচাতে আমাদের সকলের জলে ডুবে গেলে কি করণীয় সেটা সম্পর্কে জানা অত্যন্ত জরুরী।

Advertisement

Share
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on skype
Share on email

Readers comments

About the author

Sponsored

Official Facebook page

Sponsored